Tuesday , December 10 2019
Breaking News
Home / ক্রিকেট / ব্যাঙ্গালুরু বনাম মুম্বাই

ব্যাঙ্গালুরু বনাম মুম্বাই

ব্যঙ্গালুরু বনাম মুম্বাই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ- আইপিএল ২০১৯ ইং এর ৭ম ম্যাচে আজকের দিনে মুখোমুখি হলো দুই শক্তিশালী দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

টসে জিতে বোলিংয়ের নিয়েছিলো ভারতীয় জাতীয় দলের অধিনায়ক ও ব্যাঙ্গালুরুর বর্তমান অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আর নিয়মানুসারে ব্যাটিংয়ে যেতে হয় রোহিত শর্মার মুম্বাইকে। প্রথম পাওয়ার প্লে টা খুব একটা সুখকর হয়নি টসে জিতে বোলিং নেয়া ব্যাঙ্গালুরুর জন্য। সুখের হাসি হেসেছে মুম্বাই আর হাসিয়েছে মুম্বাইয়ের দুই ওপেনার ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা ও উইকেটকিপার কুইন্টন ডি কক। প্রথম পাওয়ার প্লেতেই মুম্বাই কোনো উইকেট না হারিয়ে তুলে নেয় ৫২ রান। কিন্তু, ৭ম ওভারে স্পিনার চাহালের আগমন আর তার করা তৃতীয় বলেই হেসেছে ব্যাঙ্গালুরু। ২০ বল খেলে ২৩ রান করে চাহালের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরেছেন ডি কক। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে শুরু করা ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা পুড়েছেন ২ রানের আক্ষেপে। ২ রানের জন্যই করতে পারলেননা অর্ধশতক। এগারো তম ওভারে উমেশ যাদবের বলে আউট হওয়ার আগে অধিনায়ক ৩৩ বল খেলে ৮ টি চার ও একটি ছক্কার মাধ্যমে করেন ৪৮ রান। সুরিয়াকুমার যাদব ও যুবরাজের ব্যাটেও ছিলো রানের ক্ষুদা। দুজনে মিলে গড়লেন ছোট্ট একটা পার্টনারশিপ। চাহালের করা ১৪ তম ওভারের প্রথম তিন বলে টানা তিনটি ছক্কা হাঁকিয়ে চতুর্থ বলেও ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টাটা বৃথা যায় যুবরাজের। ধরা পড়েন মোহাম্মদ সিরাজের হাতে। চাহালের বলে মঈন আলীর হাতে ক্যাচ হয়ে ফেরত যান সুরিয়াকুমার যাদবও যাওয়ার আগে অবশ্য ২৪ বলে ৩৮ রানের একটি রঙিন ইনিংস খেলেন। এরপর একজন বাদে আর কেউই পর হতে পারেননি ২সংখ্যার কোটা। টিটুয়েন্টির এক বড় নাম কিরণ পোলার্ড ফিরেন ৫ রান করে। পোলার্ডও শিকার হন চাহালের বলে আর ক্যাচটি তালুবন্দি করে পোলার্ডেরই স্বদেশী সিমরন হেটমায়ার। ক্রুনাল পান্ডিয়া ১রান করেই উমেশ যাদবের শিকার হন। ম্যাকগ্লেনহানও এক রানের বেশি করতে পারেননি। সিরাজের বলে হয়ে যান বোল্ড। শেষের দিকে হার্দিক পান্ডিয়ার তিনটি চার ও দুটি ছক্কায় ১৪ বলে অপরাজিত ৩২ রানের ছোট্ট ক্যামিও এর উপর ভর করে ১৮৭ রানের এক বিশাল টোটাল পায় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তবে, স্পিনার চাহাল ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৩৮ রান দিয়ে তুলে নেন ডি কক, যুবরাজ, সুরিয়াকুমার যাদব ও পোলার্ডের মতো চারজন টি টুয়েন্টি তারকাকে। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাঙ্গালুরু দুর্দান্ত শুরু করলেও এক রান আউটের মাধ্যমে থামে মঈন আলীর ইনিংস থামে ৭ বলে ১৩ রান করে। আরেক ওপেনার পার্থিব প্যাটেল ২২ বলে ৩১ রান করে দলীয় ৬৭ রানের সময় মার্কান্দের করা ৭ম ওভারের পঞ্চম বলে বোল্ড হয়ে মাঠ ছাড়েন। অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও এবি ডি ভিলিয়ার্স এর হাত ধরে চলতে থাকা ব্যাঙ্গালুরুকে থামায় জাসপ্রীত বুমরাহ। দলীয় ১১৬ রানের সময়ই হার্দিক পান্ডিয়ার হাতে ক্যাচ তুলে দেন বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। ১৪ তম ওভারে বিদায়ের আগে ৩২ বল খেলে ৪৬ রান করেন অধিনায়ক কোহলি। সিমরন হেটমায়ার প্রথম ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও আস্থার প্রতিদান দিতে ব্যার্থ হয়েছেন। ৬ বলে ৫ রান করে বুমরাহের বলে হার্দিক পান্ডিয়ার ক্যাচ হয়ে ফিরেছেন। অপরদিকে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই এবিডি ভিলিয়ার্স করেছেন অর্ধশতক। ৪১ বল খেলে ৪টি চার ও ৬টি ছক্কায় করেছেন ৭০ রান। কিন্তু, তার এই ৭০ রান দলকে জেতানোর জন্য যথেষ্ট হয়নি। ২০ ওভার শেষে দল গিয়ে থামে ১৮১ রানে। হেরে যায় মাত্র ৬ রানে। শেষ ওভারে দরকার ছিল ১৬ রান। প্রথম তিন ওভারে ৩৭ রান দেয়া লাসিথ মালিঙ্গাই ছিলো অধিনায়ক রোহিত শর্মার প্রথম পছন্দ আর তাতেই বাজিমাত। লাসিথ মালিঙ্গার করা শেষ ওভারের প্রথম বলে ছয় রান নিলেও বাকি ৫ বলে ব্যাটসম্যানরা করতে পেরেছে মাত্র ৪ রান। তাতেই দলের হার নিশ্চিত করে ফেলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

ফলাফল: মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ৬ রানে জয়ী।

আগামীকাল একই সময়ে রাত ৮.৩০মিনিটে চলতি আসরের অষ্টম ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের মুখোমুখি হবে রাজস্থান রয়্যালস

About Meraj Sheikh

Check Also

পাঞ্জাব বনাম মুম্বাই

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের আজকের দিনের প্রথম ম্যাচে রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এর মুখোমুখি হয় রবিচন্দ্রন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *