Saturday , December 7 2019
Breaking News
Home / টেকনোলজি / কিভাবে ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়া থেকে রক্ষা করবেন জেনেনিন
ফেসবুক হ্যাক

কিভাবে ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়া থেকে রক্ষা করবেন জেনেনিন

বর্তমান সময়ে অনেকে ফেসবুক আইডি হ্যাকের শিকার হয় ,এতে হ্যাকার একের পর এক হ্যারেজমেন্ট করতে থাকে।অনেক সময় বড় অঙ্কের টাকা দাবি করে।আবার অনেকের শখের আইডি ডিজেবল,বিভিন্ন লকে পড়ে।এইবার আসুন কি ভাবে নিজের ফেসবুক আইডি সিকিউর রাখবেনঃ
১/নিজের রিয়েল নামে আইডি খুলবেন।এবং সেটা যাতে জাতীয় পরিচয় পত্র বা আপনার ড্রাইবিং লাইসেন্সের ,পাস্পোর্টসাথে মিল থাকে।সাথে ডেট অফ বার্থ ।এগুলো যদি মিল থাকে ডকুমেন্টের সাথে তাহলে আপনার আইডি যত প্রব্লেমে পড়ুক ইজিলি ব্যাক আনা পসিবল।

২/আইডিতে নিজের ছবি ব্যাবহার করার চেস্টা করুন।বর্তমান সময়ে ফেসবুক আইডি গুলো ফেসলকে যায় এতে ফেসবুক আইডেন্টি ক্লিয়ার করার জন্য আপনার একটি পিকচার দিতে বলবে।যদি ফেসবুকে আপনার পিকচার ব্যাবহার করে থাকেন তাহলে আপনার একটা ক্লিয়ার পিকচার সাবমিট দেয়ার পর আইডি ব্যাক চলে আসবে।যদি ফেস্লক থেকে আইডি ডিজেবল হয় তাহলে ব্যাক আসার আশা ছেড়ে দেওয়ায় ভালো।

৩/কখনো সেম নামে একের অধিক আইডি সেম প্রো পিক/কাভার পিক ব্যাবহার করা থেকে বিরত থাকুন।এতে আপনার আইডি ডিজেবল হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা খুব বেশি।

৪/আইডিতে ট্রাস্টেড এড করুন । ৫টি এড করতে পারলে আপনার জন্য বেস্ট হয়।কি ভাবে ট্রাস্টেড এড করবেন-
*Sitting and Privacy<Sitting<Security and login<Choose 3to 5Friends to contact if you get locked out<Password.
পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনার বিশ্বস্ত ৫জন বন্ধুকে সিলেক্ট করুন।পারলে নিজের ফেক ৫আইডি এড করতে পারেন।

৫/আইডিতে Two factor onরাখুন।কি ভাবে Two factor onকরবেনঃ
*Sitting and Privacy<sitting<security and login<Use two-factor authentication.
ভিতরে প্রবেশ করলে হয়তো আপনার আগের নাম্বার এড করা থাকলে সেটি থাকবে বা নতুন নাম্বার যুক্ত করতে বলবে।নতুন নাম্বার যুক্ত করার পর নাম্বারে কোড যাবে।কোড বসিয়ে Turn On করুন।
সুবিধা-Two Factor On করার পর আপনি আপনার আইডি পাস দিয়ে লগিন করার পর আপনার নাম্বারে কোড যাবে ,ঐকোডটি বসানোর পর আপনি আপনার আইডিতে প্রবেশ করতে পারবেন।মাঝে মাঝে অনেক সময় কোড আসেনা যদি আপনার ডকুমেন্টের সাথে নাম জম্নতারিখ মিল থাকে তাহলে সহজে ১২ঘন্টার ভিতর ব্যাক আনা যাবে।

৬/Get alerts about unrecognized logins সব সময় চালু রাখুন।কি ভাবে চালু করবেন-
*Sitting and Privacy<sitting<security and login<Get alerts about unrecognized <massenger,email Notification on করে রাখুন।
সুবিধা-কেও আপনার আইডি অন্য ডিবাইস থেকে লগিন করলে বা চেস্টা করলে তখন আপনার কাছে নোটিফিকেসন যাবে।তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার কি হতে চলেছে😊

৭/আইডিতে ৩টা জিমেইল এড রাখুন।আর অবশ্যই জিমেইল কনফার্ম করুন।ইমেইল ফোন নাম্বার হাইড রাখুন (only me).

৮/ যাদের ফেসবুক আইডি অনেক পুরাতন ২০০৪-২০১৩ )তারা যদি ফেসবুকে ইয়াহু ব্যাবহার করে থাকেন আজকেই ইয়াহু রিমোব করে জিমেইল এড করুন।কারন আপনার আইডি হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা ৯০%।
আইডি ইয়াহু এড না করায় ভালো😊

৯/পরিচিতদের ফ্রেন্ডলিস্টে রাখুন।অপরিচিতদের ফ্রেন্ডলিস্টে না রাখাটাই আপনার জন্য খুব ভালো।ফ্রেন্ডলিস্ট (only me)করে রাখুন।

১০/থার্ড পার্টি এপ্স যেমনঃআপনি ৪০বছর পর দেখতে কেমন হবেন,আপনার বৌ দেখতে কেমন হবে,ছেলে হবে নাকি মেয়ে হবে, )এর ধরনের লিঙ্ক এপ্স এ প্রবেশ করা থেকে বিরত থাকুন।একটু মজা লাগলেও আপনার সব তথ্য ওরা হাতিয়ে নিচ্ছে।

১১/ফেসবুক কতৃক নিষিদ্ব ছবি(বুরহান,লাদেন ইত্যাদি) ছবি গুলা নিজের টাইম্লাইনে বা প্রো,কাভারে আপ্লোড থেকে বিরত থাকুন।এতে আপনার আইডি পার্মানেন্ট ডিজেবল হয়ে যাবে।

১২/ইনবক্সে কেও লিঙ্ক দিয়ে প্রবেশ করার জন্য বললে প্রবেশ করা থেকে বিরত থাকুন।এটা এক প্রকার ফিসিং প্রবেশ করার সাথে সাথে আইডির ইমেইল পাস ওদের কাছে চলে যাবে।বাকিটা বুঝে নেন😊🙃

১৩/জম্নতারিখ অবশ্যই এনাইডি,ড্রাইবিং ,পাস্পোর্টের সাথে মিল রাখুন ।আর অবশ্যই জম্নতারিখ Only Me করে রাখুন।কি দরকার নিজের জম্নতারিখ সাল সবাইকে দেখানোর ।জম্নদিন আসলে কয়েকটা ফ্রেন্ডকে বলে দিবেন উইশ করতে ওদের দেখা দেখি টাইম্লাইনে বাকিরা উইশ করে দিবে।

১৪/ইউটিউবের ভিডিও,ক্রিকেট ফুটবলের ভিডিও গুলা আপ্লোড থেকে বিরত থাকুন ।অটো কপিরাইটে আপনার আইডি ডিজেবল হবে।সেমভাবে অন্যের ফেসবুকের ভিডিও নিজের আইডিতে আপ্লোড থেকে বিরত থাকুন।কপিরাইট ডিজেবল এইডস থেকেও ভয়ঙ্কর।

১৫/পারলে নিজের প্রোফাইল লক রাখার চেস্টা করুন।ক্রোম ব্রাউজারে গিয়ে m.basic facebook.comএ গিয়ে আইডি লগিন করে অন্যের লক প্রোফাইলে প্রবেশ করে ওর This profile is locked এ ক্লিক করুন ,আপনার আইডি লক করার সুযোগ দিবে।
(অনেকের কিন্তু আসেনা)

১৬/ইনবক্সে নুড সেন্ড করা থেকে বিরত থাকুন।এতে আপনার আইডি অটোবায়োলেন্স ডিজেবল হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

১৭/পেজ/গ্রুপের এডমিন আদান প্রদান যত কম করবেন তত ভালো আপনার জন্য।আইডি ফেস্লক যাওয়ার সম্ভাবনা তখন বেশি থাকে।

১৮/রিলেশন করলে ইনবক্স ক্লিয়ার রাখুন এতে আপনার জন্য ভালো কারন বিপদ কোন সময় আসে বলা যায়না।😊

১৯/পরিশেষে এক্সেস অফ রাখুন।

*উপরের(১-১৯)নিয়গুলো ফলো করলে মোটামোটি ৯৮% সিকিউর থাকবেন।যাস্ট এনাফ সিকিউরিটির জন্য।

আপনি বুঝতে সমস্যা হলে বা ফেসবুকের যেকোন সমস্যা থাকলে ফেসবুকে নক করতে পারেন ফেসবুক  এখানে ক্লিক করে।

পরবর্তী পোস্টে জানিয়ে দিব কিভাবে ডিজেবল আইডি ব্যাক করতে পারেন আমাদের সাথে থাকুন।

About moktokotha

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *